বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৫:১৪

স্বামী পলাতক এবং মিলল স্ত্রীর লাশ।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : সিমা আক্তার (২১) নামে ঢাকার কেরানীগঞ্জে এক যুবতীর লাশ উদ্ধার করেছে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাপুলিশ।
রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার আব্দুল্লাহপুর করেরগাঁও এলাকায় জলিলের বাড়ির পার্শ্ববর্তী ডোবার ঝোপের ভেতর থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। নিহত সিমার বাবার নাম ছোট্টু মিয়া, স্বামী সোহেল রানার সঙ্গে আব্দুল্লাহপুর করেরগাঁও গ্রামের জলিল মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।
দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) খালেদুর রহমান জানান, সন্ধ্যার পর স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে এসআই শাকিব ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।
প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তাকে গলা টিপে হত্যা করে লাশটি পার্শ্ববর্তী ডোবার ঝোপের ভেতর ফেলে দেওয়া হয়েছে।
তবে নিহতের পরিবারের দাবি স্বামী সোহেল রানার সঙ্গে নিহত সিমার প্রায়ই ঝগড়া-বিবাদ হতো, গতকাল ভোরে ঝগড়ার এক পর্যায়ে সোহেল রানা তাকে হত্যা করে পালিয়েছে। এ ঘটনায় আসামি সোহেল রানাকে গ্রেপ্তারে পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।
এ ঘটনায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।