বুধবার, ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, রাত ১:১২

এক মাদরাসাছাত্র উদ্ধার অপহরণের কয়েকদিন পর।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : অপহরণের ৬ দিন পর আরাফাত হোসেন সাকিব (১৪) নামের এক মাদরাসাছাত্রকে উদ্ধার করেছে সদরঘাট নৌ থানা পুলিশ আর এই ঘটনা ঢাকা সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে। এসময় অপহরণ চক্রের সঙ্গে জড়িত আয়েশা বেগম ওরফে মুনিরা (৩২) নামের এক নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত সাকিব বরিশালের বাকেরগঞ্জ থানার দুধল গ্রামের হুমায়ূন কবিরের ছেলে।
রবিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নৌ-পুলিশের (ঢাকা জেলা) পুলিশ সুপার জনাব, ফরিদুল ইসলাম সদরঘাট নৌ পুলিশের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।
তিনি জানান, গত (২০ ফেব্রুয়ারি) রবিবার অপহৃত সাকিব বরিশাল থেকে গাজীপুরের মাদরাসায় যাওয়ার উদ্দেশে বরিশাল থেকে লঞ্চের মাধ্যমে ঢাকা সদরঘাট আসলে নিখোঁজ হয়। পরবর্তীতে অজ্ঞাত মুঠোফোন নাম্বার থেকে সাকিবের পরিবারের কাছে ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে সদরঘাট নৌ থানায় বিষয়টি জানানো হলে গুরুত্ব সহকারে তদন্তে নামে পুলিশ।
একপর্যায়ে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় সদরঘাট নৌ পুলিশের অফিসার ইনচার্জ কাইয়ুম সরদারের নেতৃত্বে একটি টিম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা এলাকা থেকে অপহরণকারী চক্রের নারী সদস্য আয়েশা ওরফে মুনিরা আক্তার (৩২)কে গ্রেপ্তার করে। পরবর্তীতে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অপহরণ চক্রের মূল হোতা (মুনিরার স্বামী) মহব্বতের পিছু নেয় পুলিশ। পুলিশ পিছু নিয়েছে এমনটা টের পেয়ে এক পর্যায়ে মহব্বত অপহৃত সাকিবকে গাজীপুর জেলার গাজিপুরা বাসস্ট্যান্ড নামক এলাকায় ফেলে পালিয়ে যায়। এরপর পুলিশ সেখান থেকে রবিবার সকালে সাকিবকে উদ্ধার করে এবং প্রাথমিকভাবে জানা গেছে এটি একটি অপহরণকারী চক্র। এ চক্রের সঙ্গে জড়িত অন্যান্য সদস্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।