শনিবার, ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, রাত ৯:১২

গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার একজন।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : ২২ বছর বয়সী এক গৃহবধূকে বগুড়ায় চাকরি দেওয়ার প্রলোভনে হোটেলে ডেকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মামুন (৪৮) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এর আগে ভুক্তভোগী গৃহবধূ নিজে বাদী হয়ে সোমবার রাতে সদর থানায় ধর্ষণ চেষ্টার মামলা করেন। মামলার পর বগুড়া সদর উপজেলার সূত্রাপুর এলাকায় নিজ বাড়ি থেকে মামুনকে গ্রেপ্তার করা হয়।
মামুন ওই এলাকায় মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে। তিনি স্থানীয় একটি বেকারিতে ম্যানেজার হিসেবে চাকরি করেন।
বগুড়া সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বেদার উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, অভিযুক্ত মামুন ওই গৃহবধূর পূর্ব পরিচিত। গত ১৩ আগস্ট তিনি (গৃহবধূ) স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে বাবার বাড়ি চলে যান। পরে ১৪ আগস্ট মামুন তাকে একটি বেকারিতে চাকরির প্রলোভন দেন। এবং ১৬ আগস্ট বিকেলে তাকে বগুড়া শহরের মাটিডালি মোড়ে আসতে বলেন মামুন।
চাকরি পাওয়ার আশায় ওই নারী সেখানে আসলে মামুন তাকে স্থানীয় একটি হোটেলে নিয়ে ধর্ষণচেষ্টা করেন। এ সময় হোটেল রুমে ওই নারীর চিৎকার শুনে এক হোটেল বয় এগিয়ে গিয়ে দরজায় নক করেন। এ সময় ওই গৃহবধূকে ছেড়ে দিয়ে দরজা খুলে দেন মামুন। সঙ্গে সঙ্গে গৃহবধূ রুম থেকে বের হয়ে আসেন।
মামলায় বলা হয়েছে, হোটেল রুমে নিয়ে ওই গৃহবধূকে অনৈতিক প্রস্তাব দেন মামুন। এ প্রস্তাবে তিনি রাজি হননি। এ কারণে মামুন তাকে মারধর ও ধর্ষণের চেষ্টা করেন। মামুনের মারধরের শিকার হয়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। ছাড়া পেয়ে ওই গৃহবধূ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন।
এসআই বেদার উদ্দিন বলেন, মামলার পরপরই সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে মামুনকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলায় আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।