শনিবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, রাত ১২:২৬

গ্রেফতার ২, জাল কাগজপত্র দিয়ে ঋণ নেয়ার চেষ্টায়।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয় থেকে দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত মো. চাঁন মিয়া রাড়ী (৬০) একই উপজেলার দশমিনা সদর ইউনিয়নের কাটাখালী গ্রামের নুর মোহম্মদ রাড়ীর ছেলে। তিনি বর্তমানে একই ইউনিয়নের চরহাদী গ্রামে বসবাস করেন। অপর গ্রেফতারকৃত মো. রফিকুল ইসলাম (৪৮) উপজেলার একই ইউনিয়নের দশমিনা গ্রামের মৃত মতলেব বিশ্বাসের ছেলে।
উপজেলা ভূমি অফিস সূত্রে জানা যায়, গ্রেফতারকৃতরা দশমিনা সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের দাখিলা জাল করে প্রস্তুতের মাধ্যমে বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, দশমিনা শাখায় চাঁন মিয়া ঋণের জন্য আবেদন করেছিলেন। ব্যাংক থেকে কাগজপত্র যাচাই বাছাইয়ের সময় কর্তৃপক্ষের কাছে ত্রুটিপূর্ণ ও সন্দেহজনক মনে হলে ব্যাংক কর্মকর্তা মো. ইদ্রিস আলী মোল্লা ও পরিদর্শক মো. শহিদুল ইসলাম খান সন্দেহজনক দাখিলার কাগজসহ চাঁন মিয়া ও রফিকুলকে নিয়ে সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসে যান। পরবর্তীতে ইউনিয়ন ভূমি অফিস কর্তৃপক্ষ ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জনাব, আবদুল কাইয়ূম সকল নথিপত্র যাচাই করে ওই দাখিলা জাল করে প্রস্তুত করা হয়েছে প্রমাণ পেয়ে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে তাদের আটক করে।
এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) রাতে দশমিনা সদর ইউনিয়নের ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা জনাব, মো. মনিরুজ্জামান মনির বাদী হয়ে আটককৃতদের বিরুদ্ধে দশমিনা থানায় মামলা দায়ের করেন।
উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) জনাব, আবদুল কাইয়ূম জানান, প্রায় আড়াই বছর পূর্বে অন্যত্র বদলী হওয়া সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা জনাব, মো. শাহজাদ হোসেনের স্বাক্ষর ও সীলমোহর জালপূর্বক গ্রেফতারকৃতরা জাল দাখিলা প্রস্তুত করে প্রতারণার উদ্দেশ্যে উহা খাঁটি হিসেবে ব্যবহার করেছে।
দশমিনা থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব, মো. জসীম জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে এবং আসামীদের বিজ্ঞাদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
“মিজানুর রহমান অপু সংবাদদাতা পটুয়াখালী”