শুক্রবার, ১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৬:২৩

বাউফলে ব্রিজের যাতায়াত ব্যবস্থা নাজুক শিক্ষার্থী চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা ২নং কালিশুরী ইউনিয়নের ছিটকা গ্রামে অবস্থিত ছিটকা মহসিন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ১৭ নং পশ্চিম ছিটকা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয় দুটির পূর্ব পাশ দিয়ে বয়ে চলেছে পুরাতন একটি স্লাব ব্রিজ ও মাটির রাস্তা। দীর্ঘ দিন ধরেই স্লাব ব্রিজটি চলাচলের জন্য ঝুঁকিতে রয়েছে এবং তার সাথে মাটির রাস্তাটিও।
উল্লেখ্য, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দুটোতে প্রায় ৬০০/৭০০ জন শিক্ষার্থী রয়েছে এবং ওই স্লাব ব্রিজ ও রাস্তা দিয়ে দৈনিক শতশত মানুষ যাতায়াত করে। কিন্তু ব্রিজ ও মাটির রাস্তা দীর্ঘ দিন সংস্কার না হওয়ায় ভোগান্তিে এলাকাবাসি।
স্থানীয় এক যুবক মো. সোহাগ হোসেন ও শামিম সরদার প্রতিবেদককে বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই স্লাব ব্রিজটি এবং পাশের রাস্তাটি ছাত্র/ছাত্রী ও জনসাধারণের চলাচলের জন্য বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে। অনেককেই বলা হয়েছে কিন্তু কেউই সারা দেয়নি। প্রতিনিয়ত শিক্ষার্থীরা ও সাধারণ মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ওই স্লাব ব্রিজ দিয়ে পারাপার হচ্ছে।
সোহাগ আরো বলেন, বর্তমানে করোনার কারণে বিদ্যালয় বন্ধ রয়েছে। তবে দ্রুত সেতুটি চলাচল উপযোগী করা না গেলে বিদ্যালয় খোলার পর শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি হবে।
এ বিষয় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব, মোতালেব হাওলাদারের সাথে সাক্ষাৎকালে তিনি বলেন, স্লাব ব্রিজটি অনেক দিন যাবত বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে, আমরা আপাতত উপজেলা পরিষদের মাধ্যমে (দুই লাখ চৌষট্টি হাজার) টাকা ব্যয় খুব শিঘ্রই ব্রিজটি মেরামতের জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বর্ষাকাল বিধায় কাজ করতে পারছি না।
তিনি আরো বলেন, উপজেলা পরিষদের মাধ্যমে এখানে উন্নতমানের একটি ব্রিজ নির্মান করা হবে, সেই প্রকল্পও আমরা হাতে নিয়েছি এবং সাবেক চিপ হুইপ ও স্থানীয় সংসদ সদস্য জনাব, আ,স,ম ফিরোজ এমপি মহোদয় এ বিষয়ে অবগত আছেন
“এম.সাইদুর রহমান সংবাদদাতা বাউফল”