মঙ্গলবার, ২৩শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, সকাল ১১:৪২

সৎ মায়ের যাবজ্জীবন, শিশু হত্যার দায়ে।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : শিশু কন্যা হত্যার দায়ে সৎ মাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন জেলা জজ আদালত আর এই ঘটনা পিরোজপুরে। বুধবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ জনাব, মহিদুজ্জামানের আদালত এই আদেশ দেন। আদালত একই সাথে আসামি মনি বেগমকে পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ডেরও আদেশ দেন।
দন্ডপ্রাপ্ত আসামি মনি বেগম (২৫) পিরোজপুর শহরের মধ্যরাস্তার জাহিদুল শেখের স্ত্রী।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) জনাব, খান মো. আলাউদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, ২০১৭ সালের ০১ ডিসেম্বর শহরের মধ্যরাস্তায় ফুসকা বিক্রেতা জাহিদুল শেখের প্রথম স্ত্রীর কন্যা ‘ঝুমুর’কে রাতে ঘুম থেকে তুলে নিয়ে জাহিদুল শেখের দ্বিতীয় স্ত্রী (সৎ মা) আসামি মনি বেগম পুকুরে ফেলে হত্যা করে। অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে পরবর্তী দিন দুপুরে পাশের পুকুরে শিশুটির লাশ ভেসে উঠলে থানা পুলিশকে খবর দেয়া হয়।
শিশু ঝুমুরের মা মুক্তা বেগম ২০১৭ সালের ২ ডিসেম্বর এ ব্যাপারে পিরোজপুর সদর থানায় মামলা করে। পরে পুলিশ তদন্ত সাপেক্ষে সৎ মা মনি বেগমকে গ্রেপ্তার করেন। পরে মনি বেগম তার দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়। সাক্ষী প্রমাণ শেষে মামলার সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেন।
উল্লেখ্য, জাহিদুল শেখ বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার বাসিন্দা। তিনি পিরোজপুর শহরের মধ্যরাস্তায় বাসা ভাড়া করে থাকত এবং শহরে ফুচকা বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিলেন।