শুক্রবার, ১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৫:১৮

গ্রেফতার ৩ জন, নবজাতকে বিক্রি করার দায়ে।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : এক নবজাতককে বিক্রির অভিযোগে তার নানীসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ আর এই ঘটনা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। গতকাল বুধবার ওই নবজাতককে উদ্ধার ও আসামিদের গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন, নবজাতকের নানী রাবেয়া খাতুন, মো. হারুন ও মনোয়ারা বেগম। আসামিদের বিরুদ্ধে মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পাঁচলাইশ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কামাল উদ্দিন।
মামলার এজাহারে বলা হয়, নবজাতকের মা তানিয়া আক্তারকে তার স্বামী বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিলে মা রাবেয়ার সঙ্গে থাকা শুরু করেন। তানিয়া গর্ভাবস্থায় অসুস্থ হয়ে পড়লে চিকিৎসার খরচ মেটাতে পারছিলেন না রাবেয়া। সে কারণে গর্ভে থাকা অবস্থায় শিশুটি বিক্রি করার পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী আসামি মো. হারুন ও মনোয়ারা বেগমের কাছ থেকে বিভিন্ন সময়ে ৫৭ হাজার টাকাও নেন রাবেয়া।
গত ২ অক্টোবর জালালাবাদের একটি ক্লিনিকে শিশুটির জন্মের পর অসুস্থ হলে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তির পর মা তানিয়া আক্তারই নবজাতকের দেখাশোনা করছিলেন। তবে রাবেয়া খাতুন পরিকল্পনা অনুযায়ী তানিয়াকে কৌশলে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন গত মঙ্গলবার। এ সুযোগে হাসপাতাল থেকে আসামি হারুন ও মনোয়ারার হাতে নবজাতকটিকে তুলে দেন নানী রাবেয়া খাতুন।
পাঁচলাইশ থানার পরিদর্শক কামাল উদ্দিন বলেন, মঙ্গলবার বিকেলে তানিয়া হাসপাতালে ফিরে নবজাতককে না পেয়ে তার মাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। তখন রাবেয়া জানায় শিশুটি হারিয়ে গেছে। পরে শিশুর মা পাঁচলাইশ থানায় এসে মামলা দায়ের করেন। রাবেয়া বেগম জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে নবজাতক চুরির ঘটনা স্বীকার করেন। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে শিশুকে উদ্ধার ও অন্য আসামিদের গ্রেফতার করা হয় বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।