রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৭:৪৩

স্বাস্থ্য বিধি মেনে পালিত হয়েছে বুদ্ধ পূর্ণিমা।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব বুদ্ধপূর্ণিমা। এই দিনটি উদযাপনের জন্য খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় স্বাস্থ্য বিধি মেনে পালিত হচ্ছে বুদ্ধপূর্ণিমা। গৌতম বুদ্ধের শুভজন্ম, বোধিজ্ঞান ও মহাপরিনির্বাণ লাভ এই তিন ঘটনার স্মৃতিবিজড়িত বৈশাখী পূর্ণিমা বিশ্বের সব জায়গার বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের কাছে বুদ্ধপূর্ণিমা নামে পরিচিত।
শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে মঙ্গলবার যথাযথ ধর্মীয় ভাবগম্ভীর পরিবেশে খাগড়াছড়ি জেলাসহ ৯ টি উপজেলায় বৌদ্ধ বিহার গুলোতে এ ধর্মীয় উৎসব উদযাপন করছে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ী চাকমা, মারমা ও বড়–য়া। খাগড়াছড়ি ঐতিহ্যবাহী য়ংড বৌদ্ধ বিহারে বুদ্ধপূর্ণিমায় উপাসক-উপাসিকা ও পূণ্যার্থীরা ব্দ্ধুপূজা, পিন্ডদান, পঞ্চশীল প্রার্থনা, সংঘদান, অষ্টপরিস্কার দান, বুদ্ধ মূর্তিদান, লাভী শ্রেষ্ঠ অরহত সীবলী মহাথেরো অভিষেক অনুষ্ঠানসহ প্রদীপ পূজা করছে। বুদ্ধ পূর্ণিমা মধ্য করোনা মহামারী থেকে বিশ্বের সকল মানুষেরা করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষার্থে এবং বিশ্ব শান্তি কামনায় কাছে প্রার্থনা করেছে পূণ্যার্থীরা।
খাগড়াছড়িতে বুদ্ধপূর্ণিমা উপলক্ষে বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা বুদ্ধ সম্প্রদায়কে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।
উলেখ্য, বৌদ্ধ ধর্ম অনুসারে, প্রায় আড়াই হাজার বছর আগের এই দিনে মহামতি গৌতম বুদ্ধের জন্মগ্রহণ করেছিলেন নেপালের লুম্বিনী কাননে। এ রাতেই তিনি বোধিজ্ঞান লাভ করেছিলেন এছাড়াও গৌতমবুদ্ধ পরিনির্বাণ লাভ করেন এ রাতেই।