রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৭:৪১

৩০০টি কেন্দ্রে দেয়া হবে করোনা টিকা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন রাজধানীতে ৩০০টি টিকাদান কেন্দ্র হবে করোনাভাইরাসের টিকা দিতে।
২৬ জানুয়ারির মধ্যে দেশে পৌঁছাবে করোনাভাইরাসের টিকা। এর সপ্তাহখানেক পর টিকাদান শুরু হবে। আর টিকা দেয়ার জন্য রাজধানী ঢাকায় ৩০০টি টিকাদান কেন্দ্র করা হবে। রাজধানীর সরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ৩০০টি টিকাদান কেন্দ্র করা হবে। সেখান থেকেই দেয়া হবে করোনার টিকা। সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে এসব কথা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জনাব, জাহিদ মালেক।
ভ্যাকসিনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার বিষয়ে জনাব, জাহিদ মালেক বলেন, পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে এমনটি মেনে নিয়ে করোনার ভ্যাকসিন দিতে হবে। তবে, এর মাত্রা বেশি হবে না। মন্ত্রী আরও জানান, টিকা প্রয়োগের পর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিলে চিকিৎসা দেবে সরকার। সব ওষুধের গায়েই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কথা উল্লেখ করা থাকে। তবে, পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিলে যেন দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া যায় সেজন্য সরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে বেছে নেয়া হয়েছে টিকাদান কেন্দ্র হিসেবে।
এছাড়া বেসরকারি পর্যায়ে সব টিকার দাম এক হবে না। বেসরকারি পর্যায়ে ভ্যাকসিন দেশে আনার ও প্রয়োগের অনুমতি দেবে সরকার তবে সেক্ষেত্রে ভ্যাকসিনের মূল্য নির্ধারণ করে দেয়া হবে বলেও জানান মন্ত্রী ।
মিট দ্যা প্রেসে অংশ নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জনাব, জাহিদ মালেক জানান, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ সরকারের প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রীকে দু’দিন আগেই চিঠি দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। করোনা ভ্যাকসিনের জন্য বিভিন্ন দেশের সঙ্গে আলাপ চলছে বলেও উল্লেখ করেন মন্ত্রী।