মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, সকাল ১১:৫০

বিক্ষোভ হয়েছে ফরিদপুরের নগরকান্দায় মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে কটূক্তির প্রতিবাদে।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : বিশ্বনবী মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) সম্পর্কে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির জ্যেষ্ঠ দুই নেতার কটূক্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছে ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা।
শুক্রবার পবিত্র জুম্মার নামাজ শেষে উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আগত ধর্মপ্রাণ মুসুল্লিরা বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেয়। পরে নগরকান্দা বাজারের মুক্তিযোদ্ধা মার্কেটের সামনে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
সেখানে তারা ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির দুই নেতার বিরুদ্ধে শ্লোগান দেন।
সমাবেশে উপস্থিত বক্তারা বলেন, আজকে পৃথিবীর সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব হজরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে জঘন্য মিথ্যাচার করেছে বিজেপির দুই নেতা। যার প্রতিবাদে দ্বীনি মুসলমানরা আজ জেগে উঠেছে। এসময় বক্তারা আরো বলেন, পবিত্র কোরআনের ঘোষণা অনুযায়ী যদি রাসুল (সাঃ) কে নিয়ে কেউ কটূক্তি করে তাহলে সে নির্বংশ হয়ে যাবে।
এ ঘটনায় ভারতের দুই নেতার প্রকাশ্যে কঠোর বিচার করতে হবে বলে দাবি তোলেন বিক্ষোভকারীরা। এছাড়া ভারতীয় সকল পণ্য বর্জনের ঘোষণাও দেন তারা।
বিক্ষোভ মিছিলটি মাওলানা নুরুল আমিনের পরিচালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন, নগরকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন মিয়া, শাকপালদিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা লিয়াকত আলী, মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা মুফতি ইসমাতুল্লাহ কাসেমী, শিক্ষক মাহবুবুর রহমান, কাউন্সিলর জাকির হোসেন জাকারিয়া, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুজ্জামান অনু, পৌর বিএনপির সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ, মুফতি সৈয়দ মুস্তাফিজুর রহমান, মুফতি আসাদুজ্জামান সহ উপজেলার হাজার হাজার ধর্মপ্রান মুসলমান।
অপরদিকে বিকালে লস্করদিয়া ইউনিয়নের বিনোকদিয়া বাজারে বাদ আসর মশিউর রহমানের নেতৃত্বে সর্বস্তরের মুসল্লীদের অংশ গ্রহনে একটি বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন মাওলানা জুনাইদ আল ফরিদী, মাওলানা এরশাদ হোসেন, মাওলানা আবু বক্কার, মাওলানা নুরুল আমিন, মাওলানা শওকত হোসেন, হাজী জামাল হোসেন, মাওলানা এমদাদ হোসেন, মাওলানা আবুল হোসেন, মাওলানা আব্দুল আজিজ, মাওলানা বেলায়েত হোসেন প্রমুখ।
এসময় উপস্থিত বক্তারা ভারতের ঐ দুই নেতার ফাঁসি দাবী করেন এবং সকল প্রকার ভারতীয় পণ্য সরকারিভাবে বর্জনের দাবী জানান। এসময় কটুক্তিকারী দুই নেতার কুশপুত্তলিকা দাহ করেন উপস্থিত নগরকান্দা সালথার ধর্মপ্রাণ মুসুল্লিরা। সব শেষে দোয়ার মাধ্যমে সমাবেশ শেষ করে বাড়ি ফিরে যান সবাই।
“মিজানুর রহমান সংবাদদাতা নগরকান্দা (ফরিদপুর)”