সোমবার, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৩:২০

ইরফান সেলিমকে কাউন্সিলর পদ থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : স্থানীয় সরকারের সিটি করপোরেশন আইনে, কোনো জনপ্রতিনিধি সাজাপ্রাপ্ত হলে তাকে বরখাস্ত করার বিধান আছে।
নৌবাহিনীর একজন কর্মকর্তাকে মারধরের পর সোমবার হাজী সেলিমের বাড়ি তল্লাশি করে মদ ও ওয়াকিটকি পাওয়ায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত ইরফান সেলিমকে এক বছর কারাদণ্ড দেন এবং তাই ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ইরফান সেলিমকে তার কাউন্সিলর পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এর আগে বিষয়টি নিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে বলে জানিয়েছিলে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে তিনি এই কথা জানান।
গেল ফেব্রুয়ারিতে ইরফান দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে প্রথমবারের মতো অংশ নিয়ে কাউন্সিলর পদে নির্বাচিত হন। তার বাবা হাজী মো. সেলিম ঢাকা-৭ আসনে তিনবারের সংসদ সদস্য।
উল্লেখ্য, রোববার রাতে ধানমণ্ডি এলাকায় সংসদ সদস্যের স্টিকারযুক্ত হাজী সেলিমের একটি গাড়ি থেকে লোকজন নেমে নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্ট মো. ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধর করা হয়। ওই গাড়িতে তখন ইরফান ছিলেন।
এরপর ওয়াসিফ মামলা করার পর সোমবার হাজী সেলিমের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ইরফান ও জাহিদকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। অন্যদিকে মিজানকে গ্রেপ্তার করে ধানমন্ডি থানা পুলিশ। পরে তাদেরকে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়ে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।