মঙ্গলবার, ২৩শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১২:১৯

ধর্ষণের অভিযোগে ফুপা-ফুপু গ্রেফতার।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা ডেস্ক : নবীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম শনিবার (১৭ অক্টোবর) বিকালে গ্রেপ্তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এবং এর আগের দিন শুক্রবার দিবাগত রাতে আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়।
হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় সেলাই মেশিনে কাজ শেখানোর কথা বলে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে ফুফা ও ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে ফুফুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
গ্রেপ্তার আজিম উদ্দিন (৩৫) নবীগঞ্জ উপজেলার গুমগুমিয়া গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের ছেলে। অন্যজন হলেন- তার স্ত্রী নাজমা বেগম (২৮)। এই দুজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগ এনে নির্যাতনের শিকার মেয়েটির মা নবীগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন।
বাদির বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত আজিম উদ্দিন নির্যাতিতার সম্পর্কে ফুফা। তারা একই এলাকার বাসিন্দা। প্রায় তিন মাস আগে আজিমের স্ত্রী মেয়েটিকে সেলাই মেশিনে কাজ শেখানোর কথা বলে। মেয়েটি তার কাছে সেলাই শিখতে শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৪ অক্টোবর মেয়েটি সেলাই শেখার কাজে ওই বাড়ি যায়। সেদিন সন্ধ্যায় আজিম উদ্দিন তার স্ত্রীর সহযোগিতায় মেয়েটিকে ধর্ষণ করে।
ভুক্তভোগী কিশোরীর মা জানান, ওইদিন বাড়ি ফিরতে দেরি হওয়ায় তিনি মেয়েকে নিতে যান। কিন্তু অভিযুক্তরা তার মেয়েকে ফিরিয়ে দিচ্ছিলেন না। পরে স্থানীয়দের মাধ্যমে মেয়েকে উদ্ধার করা হয়। সেসময় তিনি জানতে পারেন মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়েছে। ঘটনার দুই দিন পর ১৬ অক্টোবর তিনি থানায় মামলা দায়ের করেন।
নবীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (অপারেশেন) মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘ধর্ষণের প্রমাণ মিলেছে। ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য মেয়েটিকে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।