রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, রাত ৮:১১

পশুর হাট বসবে বরিশাল নগরীতে।

ডেইলি ক্রাইম বার্তা : পবিত্র ঈদ উল আযহা বা কোরবানী উপলক্ষ্যে বরিশাল নগরীতে প্রতি বছর পশুর হাট বসে এবং হাটের ইজারা পাবার জন্য সিটি কর্পোরেশনের নির্দিষ্ট প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আবেদন করতে হয়। আবেদন যাচাই বাছাইসহ সার্বিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে প্রতিটি হাটের জন্য একজন করে ইজারাদার নেয়া হয় সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষের। আপতত হিসাবে অনুযায়ী ২৯ জুন অনুষ্ঠিত হবে পবিত্র ঈদ উল আযহা। সে হিসাবে বাকি আর মাত্র ১০ দিন। তাই নগরীতে পশুর হাট ইজারা দেবার সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে বিসিসি কর্তৃপক্ষ। আজ রোববার ইজারাদার চূড়ান্ত হবে বলে জানিয়েছে বিসিসির হাট বাজার শাখার সুপারিটেন্ডেন্ট মোঃ রেজাউল। তিনি বলেন এবার নগরীতে মাত্র দুটি অস্থায়ী পশুর হাট ইজারার জন্য অনুমোদন দেওয়া হবে। একটি রুপাতলী হাউজিং এবং অন্যটি কাউনিয়া টেক্সটাইল। এছাড়া স্থায়ী ইজারা দেওয়া বাঘিয়ার পশুর হাট তো থাকবেই। তিনি আরো বলেন অস্থায়ী ২ টি হাটের জন্য ৪টি আবেদন জমা পড়ছে। আজ রোববার এই আবেদনগুলো মুল্যায়ন ও যাচাই বাছাই করে ২ জনকে ইজারাদার নিয়োগ দেওয়া হবে। বাজারে গরু,খাসীর বর্তমান অস্বাভাবিক দাম চলমান থাকার মধ্যেও অনেকটা স্বস্তির খবর দিয়েছে বরিশাল জেলা প্রানী সম্পদ বিভাগ। জেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ নুরুল আলম বলেন কোরবানীতে জেলার গরুসহ পশুর চাহিদা রয়েছে ৯৯ হাজারের একটু বেশী। কিন্তু জেলায় ফার্ম ও গৃহ পালিত মিলিয়ে পশু রয়েছে ১ লাখের উপরে। এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বরিশালে প্রচুর পশু আসে। সুতরাং চাহিদা পুরন হয়েও উল্লেখযোগ্য পশু উদ্বৃত্ত থাকবে বলে ধারনা করছি। স্বাভাবিক কারনেই বরিশালে এবার পশুর চড়া মূল্য হবার কোন সুযোগ থাকবে না বলেও জানান তিনি। এছাড়া পশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য প্রতিটি হাটে স্থাপন করা হবে একটি করে মেডিকেল টিম। অন্য দিকে বরিশাল জেলার ১০ উপজেলায় ৫০/ ৬০টি হাটের অনুমোদন দেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছে বরিশাল জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার বিভাগ শাখা। জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক গৌতম বাড়ৈ বলেন এখনো বেশী একটা আবেদন জমা পড়েনি। তবে হাট ইজারা নেবার জন্য উপজেলা থেকে যে আবেদন গুলো আসে সেগুলো আমরা স্ব স্ব উপজেলার ইউএনওদের কাছে মতামতের জন্য পাঠিয়ে দেই। তারা যার পক্ষে হাট অনুমোদনের জন্য মতামত প্রদান করেন তাকেই আমরা অনুমোদন দিয়ে দেই।
“জামাল কাড়াল সংবাদদাতা বরিশাল”